পছন্দের খাবারের অর্ডার নিচ্ছে রোবট। এমন দৃশ্যের দেখা মিলছে এখন ঢাকায়। যাত্রা শুরু করল দেশের প্রথম রোবট রেস্তোরাঁ। বুধবার আসাদগেটের কাছে ফ্যামিলি ওয়ার্ল্ড টাওয়ারের দ্বিতীয় তলায় এই রেস্তোরাঁর উদ্বোধন হয়।

বিকেলে সেখানে দেখা গেল, রোবট ঘুরছে রেস্তোরাঁ জুড়ে গ্রাহকদের সঙ্গে কথা বলছে সে। নিচ্ছে পছন্দের খাবারের অর্ডার। আবার রোবটের পেছনে থাকা মনিটরের স্ক্রিনে ভেসে ওঠা বাটনে চাপ দিয়ে গ্রাহকরাও দিচ্ছেন খাবারের অর্ডার।

শক্তিশালী ওয়াইফাইয়ের মাধ্যমে সে অর্ডার স্বয়ংক্রিয় ভাবে চলে যাচ্ছে রান্নাঘরে, শেফের কাছ। ঝটপট তৈরি হচ্ছে খাবার। দ্রুত সেই খাবার নিয়ে ওই রোবটই হাজির হচ্ছে নির্দিষ্ট টেবলে। রেস্তোরাঁটি যৌথ ভাবে পরিচালনা করছে বাংলাদেশ ও চিন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আয়োজকরা জানালেন, এই ধরনের এটাই প্রথম রেস্তোরাঁ, যেখানে রোবটের মাধ্যমে গ্রাহকদের খাবার সরবরাহ করা হবে।  এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ একটি নতুন মাইলফলক এবং নতুন দিগন্তের সূচনা হল।

রেস্তোরাঁর পরিচালক রাহিন রাইয়ান নবির বক্তব্য, ‘‘অনেক সময় দেখা যায় যে, ওয়েটাররা কয়েক ঘণ্টা কাজের পর ক্লান্ত হয়ে পড়েন। ক্লান্ত অবস্থায় তাঁরা গ্রাহকদের খাবার সরবরাহ করতে বাধ্য হন। কিন্তু রোবট কখনওই ক্লান্ত হবে না। তাই যখন রোবট খাবার সরবরাহ করবে, তখন এটি গ্রাহককে আরও ভাল পরিষেবা দিতে পারবে। সকল বয়সের মানুষের জন্য অত্যন্ত রোমাঞ্চকর পরিবেশও তৈরি করবে। বিশেষ করে শিশুরা বেশি রোমাঞ্চিত হবে।’’