Breaking News

বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা এবং শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সম্মাননা

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা এবং শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান আজ (শুক্রবার) বিকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা প্রশাসক বলেন, ক্ষণজন্মা মহীয়সী নারী বেগম রোকেয়া ছিলেন নারী জাগরণের অগ্রদূত। নারীমুক্তি, সমাজ সংস্কার ও প্রগতিশীল আন্দোলনে তাঁর ভূমিকা ছিলো গুরুত্বপূর্ণ। তিনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনসহ বিভিন্ন সমাজ উন্নয়নমূলক কাজের মধ্য দিয়ে নারী সমাজকে আলোর পথ দেখান। জেলা প্রশাসক আরও বলেন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ নিজের ঘর থেকে শুরু করতে হবে। নারী-পুরুষের মধ্যে এখন কোন ভেদাভেদ নেই। নারীরা ঘরে ও বাইরে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী সমাজকে দেশের সার্বিক উন্নয়নে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ সাদিকুর রহমান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর আহমদ, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আলমগীর কবির। স্বাগত জানান জেলা মহিলা বিষয়ক দপ্তরের উপপরিচালক হাসনা হেনা। এসময় শ্রেষ্ঠ জয়িতারা তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন। খুলনা জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক দপ্তর যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকার চার জন এবং জেলার পাঁচ জন শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা ক্রেস্ট এবং সনদপত্র প্রদান করা হয়।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকার সম্মাননা প্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ চার জয়িতা হলেন-অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নারী ক্যাটাগরীতে খুলনার আকসা ইসাডোরা হৈম, সফল জননী খুলনার রোকেয়া বাশার, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা খুলনার ফারজানা রহমান এ্যানি এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় খুলনার পাখি দত্ত হিজড়া। এছাড়া খুলনা জেলার পাঁচ শ্রেষ্ঠ জয়িতা হলেন- অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নারী ক্যাটাগরীতে খুলনার আকসা ইসাডোরা হৈম, শিক্ষা ও চাকুরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী কয়রার কারিমুন নেছা, সফল জননী ক্যাটাগরীতে দাকোপের লক্ষ্মী রায়, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা খুলনার ফারজানা রহমান এ্যানি এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় খুলনার পাখি দত্ত হিজড়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *